বিষাক্ত প্রাণী এবং প্রত্যেক কুদৃষ্টির অনিষ্ট থেকে নিরাপদ থাকার দোয়া - Daily Bulletin

বিষাক্ত প্রাণী এবং প্রত্যেক কুদৃষ্টির অনিষ্ট থেকে নিরাপদ থাকার দোয়া

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: জুন ২৪, ২০২৪

মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন জগৎগুলোর সৃষ্টিকর্তা। তিনিই সব মাখলুকের রিজিকদাতা। তিনিই সব মাখলুকের প্রতিপালক। বিপদাপদ, রোগ-শোক, দুঃখ, বেদনায় জর্জরিত মানুষের তিনিই একমাত্র সহায়। বিপদসংকুল পরিস্থিতিতে মানুষকে রক্ষাকারী তিনিই।

তিনিই হেফাজতকারী; উত্তম হেফাজতকারী। বিপদকালীন বিপদগ্রস্ত অসহায়জনের ‘মুশকিলে আসান’ তিনিই করেন। পবিত্র কুরআন মাজিদে আল্লাহপাক ইরশাদ করেন। অতএব, আল্লাহ উত্তম হেফাজতকারী এবং তিনিই সর্বাধিক দয়ালু (সূরা ইউসুফ : আয়াত ৬৪)।

বিপদকালীন মুহূর্তে কোনো মানুষ যখন তারই কাছে সাহায্য চায় তখন তিনি তার ডাকে সাড়া দেন। বিপদগ্রস্তকে বিপদ থেকে রক্ষা করেন এমনকি তার কষ্টও দূরীভূত করে দেন। এ প্রসঙ্গে আল্লাহপাক ইরশাদ করেন, বল তো কে; নিঃসহায়ের ডাকে সাড়া দেন যখন সে ডাকে এবং কষ্ট দূরীভূত করেন (সূরা আন নামল আয়াত : ৬২)।

তিনি আরও বলেন, আর যদি আল্লাহ তোমাকে কোনো কষ্ট দেন, তবে তিনি ব্যতীত তা অপসারণকারী কেউ নেই। পক্ষান্তরে যদি তোমার মঙ্গল করেন, তবে তিনি সবকিছুর ওপর ক্ষমতাবান (সূরা আল আনআম আয়াত : ১৭)।

নবি করিম (সা.) দিনের দুপ্রান্তে আল্লাহতায়ালার কাছে সার্বিক নিরাপত্তা চেয়ে দোয়া করতেন। তিনি বলতেন, ‘হে আল্লাহ! আপনি আমাকে হেফাজত করুন আমার সম্মুখ থেকে, আমার পেছন দিক থেকে, আমার ডান দিক থেকে, আমার বাম দিক থেকে এবং আমার ওপর দিক থেকে। হে আল্লাহ! আমি আপনার মর্যাদার অছিলায় মাটিতে ধসে যাওয়া থেকে আপনার কাছে আশ্রয় চাইছি’ (সুনানে আবু দাউদ)।

অর্থাৎ আমাকে জিন, মানুষ ও পোকামাকড়ের অনিষ্ঠতা থেকে রক্ষা করুন এবং শয়তানের ক্ষতি থেকে। আমাকে আগত মসিবত থেকে, মাটিতে ধসে যাওয়া থেকে, আজাব থেকে ও সাধারণ সব ক্ষতিকারক বস্তু থেকে রক্ষা করুন।

সুহাইল ইবনে আবু সালিহ (রহ.) থেকে বর্ণিত তার বাবা বলেছেন, আমি আসলাম গোত্রের এক ব্যক্তিকে বলতে শুনেছি, একদিন আমি আল্লাহর রাসুলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কাছে বসেছিলাম। তখন জনৈক ব্যক্তি এসে বললো, হে আল্লাহর রাসুল! রাতে আমাকে কিছু একটা কামড় দিয়েছে, আমি সারা রাত ঘুমাতে পরিনি। তিনি জিজ্ঞাসা করেন, সেটা কী ছিল?

সাহাবি বললেন, বিচ্ছু। নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেন, যদি তুমি সন্ধ্যার সময় এ দোয়াটি পাঠ করতে, তবে আল্লাহ চাইলে কোন কিছু তোমার ক্ষতি করতে পারতো না।

দোয়াটি হলো: أَعُوْذُ بِكَلِمَاتِ اللهِ التَّامَّاتِ مِنْ شَرِّ مَا خَلَقَ

উচ্চারণ: আউজু বিকালিমাতিল্লাহিত তাম্মাতি মিন শাররি মা খলাক।

অর্থ: আমি আল্লাহর পরিপূর্ণ কলেমার দ্বারা প্রত্যেক শয়তান, বিষাক্ত প্রাণী এবং প্রত্যেক কুদৃষ্টির অনিষ্ট থেকে আশ্রয় চাইছি।

উপকার: আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি সকাল-সন্ধ্যা এই দোয়া তিনবার পড়বে, আল্লাহ তাআলা তাকে সমস্ত প্রাণী, বিশেষ করে সাপ, বিচ্ছু প্রভৃতি বিষাক্ত ও কষ্টদায়ক প্রাণীর অনিষ্ট থেকে রক্ষা করবেন। (তিরমিজি, হাদিস : ৩৬০৪)

বর্ণিত আছে, এটি সকল বিপদ থেকে মুক্তির দোয়া। এই দোয়ার মাধ্যমে সকল অনিষ্ট থেকে আল্লাহর কাছে সাহায্য প্রার্থনা চাওয়া হয়েছে।