রাজাপুরে চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে বাগানে থেকে যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার - Daily Bulletin

রাজাপুরে চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে বাগানে থেকে যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: জুলাই ৫, ২০২৪

মো. নাঈম হাসান ঈমন, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের সাতুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান সৈয়দ মাইনুল হায়দার নিপুর বাড়ির সামনে একটি কলাবাগান থেকে এক যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার (৫ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান বাড়ি সংলগ্ন সাতুরিয়া কমিউনিটি ক্লিনিক এলাকার রাস্তার পাশের একটি কলাবাগান থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। যুবকের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাঁর আনুমানিক বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছর। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আতাউর রহমান।

পুলিশ জানায়, সকালে বশির নামের একজন ব্যক্তি ওই যুবকের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহের সুরতহাল শেষে থানায় নেওয়া হয়। ওই ব্যক্তির শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করে মরদেহ ওই বাগানে ফেলে দেওয়া হয়। এ ছাড়াও মরদেহের পাশ থেকে একটি ছুরি পাওয়া গেছে। এখনও তাঁর পরিচয় পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সাতুরিয়া ইউনিয়নের (ইউপি) চেয়ারম্যান সৈয়দ মাইনুল হায়দার নিপু বলেন, মরদেহ দেখে থানায় খবর দেওয়া হয় এবং প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের চৌকিদার দিয়ে খবর নিয়েছি। কিন্তু পরিচয় শনাক্ত করতে পারিনি। সীমান্তবর্তী কাউখালি উপজেলার লোকজন মরদেহ দেখেছে, তারাও এ ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেননি।

রাজাপুর থানার ওসি মু. আতাউর রহমান বলেন, লাশটির পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি। আশেপাশের বিভিন্ন থানায় এ লাশটি শনাক্তের ব্যাপারে তথ্য চেয়েছি। ময়নাতদন্ত শেষে হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হবে।